হালাল টাকা হজ্জ কবূলের শর্ত

হালাল টাকা হজ্জ কবূলের শর্ত

হজ্জের জন্য যে অর্থ খরচ করা হবে তা হালাল হতে হবে। হজ্জের মধ্যে হারাম টাকা খরচ করা হারাম। যে হজ্জে হারাম টাকা খরচ হয়, সে হজ্জ কবূল হয় না। কারো কাছে হালাল টাকা নেই কিন্তু সে হজ্জ করতে চায়, তাহলে সে কারো কাছ থেকে হালাল পন্থায় উপার্জন করা টাকা ঋণ নিবে। এরপর হালাল টাকা দিয়ে ঋণ পরিশোধ করতে চেষ্টা করবে। একান্ত কোনো ব্যবস্থা করতে না পারলে হারাম অর্থ দিয়েই ঋণ পরিশোধ করে দিবে। *[রদ্দুল মুহতার ৩/৫১৯ রশীদিয়া]*

নাবালেগের হজ্জের হুকুম:

নাবালেগ যদি পিতা-মাতা বা অন্য কারো সাথে হজ্জ করে তাহলে তার এই হজ্জ নফল বলে গণ্য হবে। বালেগ হওয়ার পর হজ্জ ফরয হলে তাকে আবার হজ্জ করতে হবে। অন্যথায় হজ্জের ফরয আদায় হবে না। *[রদ্দুল মুহতার ২/৪৬৬]*

ফকীর হয়ে গেলে:

কারো উপর হজ্জ ফরয হয়েছিল, কিন্তু সে যেকোনো কারণে হজ্জ করেনি, ইতিমধ্যে সে ফকীর হয়ে গেল, তার উপর হজ্জ ফরযই থেকে যাবে। যার উপর একবার হজ্জ ফরয হয়, আদায় করা ছাড়া তাঁর থেকে এই ফরয আর সাকেত হয় না। *[কিতাবুল মাসাইল ৩/৯৭]*