সংগ্রাম ও প্রত্যাশা কি

সংগ্রাম ও প্রত্যাশা কি

‘সংগ্রাম’ ও ‘প্রত্যাশা’ হচ্ছে দুটি যুদ্ধজাহাজ । যেগুলো বাংলাদেশ নৌবাহিনীর জন্য চীন তৈরি করেছে ।  নতুন দুইটি যুদ্ধজাহাজ ‘সংগ্রাম’ ও ‘প্রত্যাশা’ ৯০ মিটার লম্বা ও ১১ মিটার প্রস্থের ঘণ্টায় সর্বোচ্চ ২৫ নটিক্যাল মাইল বেগে চলতে পারে।

২০১৯ সালের ২৭ এপ্রিল বেলা দুইটায় বন্দরের বহির্নোঙর থেকে কর্ণফুলীর নেভাল জেটিতে নিয়ে আসা হয় জাহাজ দুইটি। এবং ১২ এপ্রিল জাহাজ দুইটি চীনের সাংহাই থেকে যাত্রা শুরু করে। চীনের ইয়ানতিয়ান বন্দর ও মালয়েশিয়ার কেলাং বন্দর হয়ে প্রায় ৮ হাজার কিলোমিটার সমুদ্রপথ পাড়ি দিয়ে বাংলাদেশে পৌঁছে।

চট্টগ্রাম নৌ অঞ্চলের কমান্ডার রিয়ার অ্যাডমিরাল আবু আশরাফ প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে জাহাজ দুইটিকে স্বাগত জানান।

নৌবাহিনী সূত্রে জানা গেছে, জাহাজ দুইটিতে শত্রু বিমান, জাহাজ ও স্থাপনায় আঘাত হানতে সক্ষম আধুনিক কামান, ভূমি থেকে আকাশ ও ভূমি থেকে ভূমিতে উৎক্ষেপণযোগ্য মিসাইল, অত্যাধুনিক থ্রিডি রাডার, ফায়ার কনট্রোল সিস্টেম, রাডার জ্যামিং সিস্টেমসহ বিভিন্ন যুদ্ধ সরঞ্জাম রয়েছে। রয়েছে হেলিকপ্টার অবতরণ ও উড্ডয়নের জন্য ডেক ল্যান্ডিং সুবিধা।

বাংলাদেশ নৌবাহিনীর জন্য জাহাজ দুইটি (করভেট) নির্মাণের লক্ষ্যে ২০১৫ সালের ২৯ সেপ্টেম্বর চীনের শিপ বিল্ডিং অ্যান্ড অফশোর কোম্পানি লিমিটেডের সঙ্গে চুক্তি হয়। ২০১৬ সালের ৯ আগস্ট জাহাজ দুইটির স্টিল কাটিংয়ের মাধ্যমে নির্মাণকাজ শুরু হয়। ২০১৯ সালের ২৮ মার্চ সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠানটি বাংলাদেশ নৌবাহিনীর কাছে হস্তান্তর করে।