ইসলামিক ইউটিউব দম্পতি “উম্মে আবদুল্লাহ’র” পরিচয় ও কার্যক্রম ফাস !

ইসলামিক ইউটিউব দম্পতি “উম্মে আবদুল্লাহ’র” পরিচয় ও কার্যক্রম ফাস !

এই ভার্চুয়াল যুগ যেখানে ইন্টারনেট মানুষের উপর একটা ভালো অবস্থান করে নিয়েছে । যার ফলে যেকোন কন্টেন্ট বানানোর সীমাহীন সুযোগ তৈরি হয়েছে । অনেক মানুষই এই সোশ্যাল মিডিয়াকে নিজেদের ব্যক্তিগত বাজে স্বার্থে ব্যবহার করে চলেছে । আবার অন্যদিকে সারা বিশ্বজুড়ে অনেকেই ইন্টারনেটের মাধ্যমে তাদের দক্ষতা প্রদর্শনের সুজোগ পাচ্ছেন, ভালো ভালো স্কিল শেয়ার করছেন ।এবং সেগুলো অন্যরা টিউটোরিয়াল আকারে দেখে শিখছেন এবং স্বাবলম্বী হচ্ছেন।

আমরা সোশ্যাল মিডিয়াতে যা কিছু দেখি তার সবটা বিশ্বাস করতে হবে তা কিন্তু নয় । এই যেমন কিছুদিন আগে আহসান হাবীব পেয়ার নামক এক ব্যক্তি ইসলামের  নাম ভাঙ্গিয়ে ব্যবসা করতে গিয়ে আলোচনা সমালোচনায় এসেছেন , এবং তার শাস্তিও হয়েছে ।

সেরকমই এক দম্পতি “উম্মে আবদুল্লাহ” এবং “হাসানাত অফিসিয়াল” । তারা ইতোমধ্যে ইউটিউবে সেরা ইসলামি দম্পতি হিসেবে জনপ্রিয়তা পেয়েছে । তবে তাদের প্রতারণা ইতিমধ্যে প্রত্যেকের মনে গুরুতর হতাশা তৈরি করেছে ।

চলুন দেখে নেয়া যাক। কে এই “উম্মে আবদুল্লাহ” কি তার আসল নাম এবং পরিচয় ?

একজন তার পরিচয় প্রকাশ করে একটি টুইট করেছেন। নিচে দেয়া হলো ।

The exposing of ummxabdullah: a thread ✨ pic.twitter.com/qtQqgjjkI6

 

মূলত “উম্মে আবদুল্লাহ” এর আসল নাম “রুখসানা আলী” ও তার স্বামী আবু আব্দুল্লাহ হাসনাত যুক্তরাজ্যে বসবাস করেন । এবং তারা বাংলাদেশী । রুখসানা আলী Instagram এ ‘Umxabdullah’ নামে পরিচিত । রুখসানা আলীকে 500k এরও বেশি মানুষ ফলো করে থাকে । এবং তিনি ও তার স্বামী ব্যক্তিগত ও দৈনন্দিন জীবনে ঘটনার ভিডিও ইনস্টাগ্রামে প্রকাশ করে ইতিমধ্যে বেশ বিতর্কের সম্মুখীন হয়েছেন । এই দম্পতির একটি ইউটিউব চ্যানেলও আছে যা ‘social media couple’ নামে পরিচিত।

এবার চলুন দেখি আসি “উম্মে আবদুল্লাহ” এবং  “রুখসানা আলী”  আসলেই কি একই ব্যক্তি নাকি আলাদা ।

প্রথম ছবিটি “রুখসানা আলী” নামক আইডি থেকে প্রকাশ করা হয়েছে।

এই ছবিতে দুটি প্রমা্ণ মেলে ।
  1. পেছনে তার ছেলেকে দেখা যাচ্ছে
  2. তার হাতের আংটি সেই আংটি যেটি “উম্মে আবদুল্লাহ” অন্য সকল ভিডিওতে দেখা যায়

দ্বীতিয় ছবিটি “উম্মে আবদুল্লাহ” নামক আইডি থেকে প্রকাশ করা হয়েছে।

এই ছবিতে একটি প্রমাণ মেলে ।
  1. “রুখসানা আলী” র আইডি থেকে যে ছবি প্রকাশ করা হয়েছিলো । সেই সেইম শার্টটিই বাচ্চাটি পরে আছে !

তৃতীয় ছবিটি “উম্মে আবদুল্লাহ” নামক আইডি থেকে প্রকাশ করা হয়েছে।

এই ছবিতে একটি প্রমাণ মেলে ।
  1. “উম্মে আবদুল্লাহ” হাতের আংটি আর প্রথম ছবির আংটি সেইম !

দেখুনতো দুটো ছবি মিলাতে পারছেন কিনা …?

প্রথমটি “রুখসানা আলী” এর মডেল এ্যাকাউন্ট থেকে প্রকাশ করা হয়েছে এবং দ্বীতিয়টি উম্মে আবদুল্লাহ ।

দুটো ছবি পাশাপাশি রেখে এডিট করে মুখ ঢেকে দিলে দেখতে সেইম । তবে মেকাপের কারণে বা পাশেরটা উজ্জ্বল দেখাচ্ছে ।


ফেইসবুক পেজ থেকে জানাযায় ‘sistersarrah’ নামক রুকসানার প্রিয় বান্ধবিকে তার স্বামী হাসনাত বিয়ে করেছে দুই বছরেরও বেশি সময়, কিন্তু কয়েকদিন আগেই এটি জনসমক্ষে প্রকাশ করা হয়েছিল। তার আরেকটি ইন্সট্রগ্রাম একাউন্ট আছে যার নাম ‘zarrahofficial’ যেখানে তিনি একজন পেশাদার মডেল বলে দাবি করেছেন এবং হিজাব ছাড়া তার ছবি পোস্ট করেছেন। কিন্তু কেউ জানতেন না যে এই দুটি অ্যাকাউন্ট একই মেয়ের অন্তর্গত।

এই বছরের শুরুর দিকে, দম্পতিরা কাতারের দোহায় ছুটি কাটিয়েছিল । উভয় অ্যাকাউন্টের ছবি এবং পোস্টগুলির মধ্যে কিছু সাদৃশ্য লক্ষ্য করা যায় এবং এটি আশ্চর্যজনক । একই স্থান থেকে ছবি পোস্ট করা হয়েছে, একই সময়ে এবং একই হোটে থেকে । তারা তাদের ফলোয়ার নিইকট এটি স্পষ্ট করে তুলেছেন যে ‘ummxabdullah’ এবং ‘zarrahofficial’ একই ব্যক্তি।

সুতরাং ইনস্টাগ্রামে ‘ummxabdullah’ এবং ‘zarrahofficial’ একই ব্যক্তি । কখনো সে মডেল হিসেবে । আবার কখনো হিজাব পরে হুজুরের বউ হিসেবে আত্মপ্রকাশ করে থাকে ।

এই স্ক্রিনশট থেকে জানা যায় তিনি একটি মডেল এজেন্সিতে এ্যাফিলিয়েট হিসেবে কাজ করেন ।

এবং তার বান্ধবির সঙ্গে বিবাহ বিচ্ছেদ ঘটেছে বলেও দ্বিতীয় স্ত্রী নিজ মুখে জানিয়েছেন ।

সুতরাং যারা তাদের মতো লাইফ দেখে নিজেরাও তাদের মতো হতে চান । তারা সাবধান হোন । কারন আমরা মিডিয়াতে যা দেখি বাস্তবতা অনেকটাই তা নয় । আর তারা মূলত একটা দাতব্য সংস্থার নামে টাকা কালেকশন করে । এজন্য সোশ্যাল মিডিয়াকে হাতিয়ার হিসেবে গ্রহণ করে নিজেদের পকেট ভরার ধান্দায় কাজ করে যাচ্ছে । অনেকটা আহসান হাবীব পেয়ারের মতো ।

আরো তথ্য জানতে এই ইংলিশ আর্টিকেলটি পড়তে পারেন